চারা উৎপাদনের মাধ্যম

ইন্টারকোঅপারেশন - এএফআইপি প্রকল্পের সৌজন্যে আপডেটকৃত

                  

চারাগাছ উৎপাদন ও বংশবিস্তারের ( Media for propagating and growing nursery plants) কাজে ব্যবহৃত মাধ্যমসমূহের মধ্যে  

(ক) মাটি

(খ) বালি

(গ) ভার্মিকুলাইট

(ঘ) প্যারালাইট

(ঙ) স্ফ্যাগনাস মস

(চ) লিফমোল্ড

(ছ) কম্পোষ্ট ও মাটির মিশ্রণ

(জ) কোকোমস ইত্যাদি প্রধান।

মাধ্যমের বৈশিষ্ট্যসমূহ ( Characteristics)

চারা উৎপাদনের ব্যবহৃত মাধ্যমের নিন্মলিখিত বৈশিষ্ট্য বা গুন থাকা বাঞ্ছনীয়ঃ

১) অঙ্কুরোদগমের সময় বীজ ও শিকাড়ায়নের সময় কাটিংকে সঠিক স্থানে শক্তভাবে আটকে রাখার ক্ষমতা থাকতে হবে।
২) পানি ধারণ এবং পর্যাপ্ত আদ্রতা সরবরাহ করার ক্ষমতা থাকতে হবে।

৩) ছিদ্রযুক্ত হতে হবে যাতে বাতাস এর মধ্য দিয়ে চলাচল করতে পারে এবং অতিরিক্ত পানি সহজেই নিষ্কাশিত হতে পারে।
৪) লবণাক্ত হতে পারবে না অর্থাৎ মাধ্যম অবশ্যই লবণমুক্ত হতে হবে।

৫) মাধ্যম অবশ্যই আগাছার বীজমুক্ত, ক্ষতিকারক কীট ও রোগমুক্ত এবং নেমাটোড বা কৃমিমুক্ত হতে হবে।

 

চারা উৎপাদনে মাটির মিশ্রণ

বেলে দো-আঁশ মাটির জন্য

মাটিঃ আবর্জনা সার (অনুপাত)

৭৫ ভাগঃ ২৫ ভাগ (৬ মাস পর্যন্ত চারা রাখার জন্য)

৫০ ভাগঃ ৫০ ভাগ (১ বৎসর চারা রাখার জন্য)

২৫ ভাগঃ ৭৫ ভাগ (২ বৎসরের বেশী সময় চারা রাখার জন্য)

 

এটেল মাটির জন্য (অনুপাত)

     মাটি         :        বালি        :      আবর্জনা সার

   ৩০ ভাগ      :      ৩০ ভাগ      :        ৪০ ভাগ